বরিশালে যৌতুকের মামলা প্রত্যাহার না করায় স্ত্রীর উপর স্বামীর হামলা

প্রকাশিত: ৩:০১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২২, ২০২০

বরিশালে যৌতুকের মামলা প্রত্যাহার না করায় স্ত্রীর উপর স্বামীর হামলা
নিউজটি শেয়ার করুন

বরিশাল : বরিশালের আগৈলঝাড়ায় স্বামীর বিরুদ্ধে যৌতুক মামলা করার অপরাধ সহ সেই মামলা প্রত্যাহার না করায় স্ত্রীর উপর স্বামীর হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্থানীয় ও আহত সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বড়মগড়া গ্রামের বিরেন রায়ের মেয়ে রুমা রায়ের (২৩) সাথে কোটালীপাড়া উপজেলার নারকেলবাড়ি গ্রামের মৃত বিষ্ণুপদ বিশ্বাসের ছেলে বিলাস বিশ্বাসের সাথে ২ বছর আগে বিয়ে হয়।

বিয়ের একবছর পরেই বিলাস যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী রুমার উপর শারীরিক ও মানুষিক নির্যাতন করতো। পরে রুমা নির্যাতন শয্য করতে না পেরে পিতার বাড়ি চলে আসে। স্বামী বিলাস তার দাবীকৃত যৌতুকের টাকা না দিলে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। পরে রুমা বরিশাল আদালতে স্বামী বিলাসের বিরুদ্ধে যৌতুক মামলা দায়ের করে। গত এক বছর যাবৎ মামলা চলমান থাকার পরও বিলাস তার স্ত্রী রুমাকে ঘরে তুলে নেয়নি। শুক্রবার বিকেলে বিলাস আগৈলঝাড়া বড়মগড়া গ্রামে তার বোন সবিতা বিশ্বাসের বাড়ি আসে। সবিতা বিশ্বাসের বাড়ির পাশে রুমা রায়ের বাড়ি কাছাকাছি থাকায় বিলাস তার স্ত্রী রুমাকে খবর দেয়।

তখন রুমা খবর পেয়ে বিলাসের সাথে দেখা করতে আসলে বিলাস তার স্ত্রী রুমাকে মামলা প্রত্যাহারের জন্য বলে এবং অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে। রুমা মামলা প্রত্যাহার করবে না বললে স্বামী বিলাস রুমাকে মারধর শুরু করে। তখন রুমার ডাক চিৎকারে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে বিলাস পালিয়ে যায় এবং রুমাকে উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এঘটনায় রুমা থানায় মৌখিক অভিযোগ দায়ের করেছে। এর আগেও বিলাস তার স্ত্রী রুমাকে নির্যাতনের কারনে রুমা থানায় সাধারন ডায়েরী করেছিল। গত দুই মাস পূর্বে বিলাস স্ত্রী রুমাকে না জানিয়ে আবার ২য় বিয়ে করে।


নিউজটি শেয়ার করুন

আমাদের ফেসবুক পেজ